1. admin@sbarta24.com : Rahat : Anwar Babul
ঈদের কেনাকাটা করতে গিয়ে দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার দুই কিশোরী - Home
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৭:০৯ অপরাহ্ন
এই মুহূর্তে
Welcome To Our Website... করোনা মুক্তিতে দেশ ও জাতির জন্য ঈদ জামাতে বিশেষ দোয়া, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে কালবৈশাখী ঝড়ের আভাস। টিকা নিয়ে নতুন ঘোষণা রাশিয়ার, এক ডোজই রুখে দেবে করোনার সব ভ্যারিয়েন্ট....

ঈদের কেনাকাটা করতে গিয়ে দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার দুই কিশোরী

অপরাধ ডেস্কঃ
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ১০ মে, ২০২১
  • ৭৩ বার পঠিত

ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে ঈদ উৎসকে সামনে রেখে কেনাকাটা করতে গিয়ে দুই কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার (৭ মে) রাত সাড়ে ৮টার দিকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানাধীন রাজাবাড়ী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী দুই কিশোরীর মধ্যে একজনের বয়স ১৮ বছর ও অন্যজনের বয়স ১৭ বছর বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী একজনের ছেলে বন্ধুসহ ৯ জনের নাম উল্লেখ করে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় পৃথক দুটি মামলা করা হয়েছে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে আশিক হোসেন (২৪) নামের ওই ছেলে বন্ধুসহ এজাহারভুক্ত চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে। এ ঘটনায় জড়িত অন্য পাঁচজন পলাতক। শনিবার (৮ মে) বিকেলে ধর্ষণের শিকার দুই কিশোরীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এজাহার ও ভুক্তভোগীদের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সন্ধ্যার পর দুই বান্ধবী দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের আব্দুল্লাহপুর এলাকার মার্কেটে ঈদের কেনাকাটা করতে আসে। বিষয়টি তাদের একজনের ছেলে বন্ধু আশিক জানতে পারেন। পরে আশিক মুঠোফোনে যোগাযোগ করে তাদের বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে রাজাবাড়ী এলাকার ছবির উদ্দিনের পরিত্যক্ত ছাপরা ঘরে নিয়ে আসেন। সেখানে আগে থেকে অপেক্ষা করছিল অপু, রিফাত, শাহীনসহ আরো ছয়জন। এক পর্যায়ে আশিকসহ ৯ জন ওই দুই কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। তাদের কাছ থেকে ছাড়া পেয়ে তারা রাত ১০টার দিকে বাসায় গিয়ে পরিবারকে ঘটনা জানায়।

দুই পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টি থানায় জানালে শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে পুলিশ রাজাবাড়ী এলাকায় অভিযান চালিয়ে আশিকসহ তাঁর দুই বন্ধুকে আটক করে। গতকাল এ ঘটনায় জড়িত আরো এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

আরও খবর

Visitors online – 3890
users – 4
guests – 3765
bots – 121
The maximum number of visits was – 2021-06-15
all visitors – 6342
users – 17
guests – 5630
bots – 695